Breaking News
Home / হেলথ টিপস / দাঁত ব্যথা দূর করার উপায় – দাঁত ব্যথা দূর করার সহজ উপায়

দাঁত ব্যথা দূর করার উপায় – দাঁত ব্যথা দূর করার সহজ উপায়

দাঁত ব্যথা দূর করার উপায় – দাঁত ব্যথা দূর করার সহজ উপায় – দাঁত মানব শরীরের খুবি গুরুত্বপূর্ন একটি অংশ।দাঁত মানব দেহের জন্য খুবি মূল্যবান জিনিস এই জন্যই একটি কথা প্রচলিত আছে দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা দেওয়াটা অত্যন্ত জরুরি।সঠিক যত্ন না করার ফলে দাঁতে বিভিন্ন রকমের সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে।আর যাদের দাঁতের সমস্যা রয়েছে একমাত্র তারাই বলতে দাঁতের সমস্যা কতটা অসস্থিকর একটি ব্যাপার।

বেশিরভাগ মানুষ যে সমস্যাটিতে ভুগে তা হলো দাঁত ব্যথা আর এই দাঁত ব্যথার যন্ত্রণা একমাত্র তারাই বলতে পারে যাদের দাঁত ব্যথার সমস্যা রয়েছে।অনেক কারনে দাঁত ব্যথা দেখা দিতে পারে যেমনঃ মাড়ির সমস্যাজনিত কারনে,দাঁতের ইনফেকশনের কারনে,দাঁত দিয়ে রক্ত পড়ার কারনে,ক্যাভিটি সমস্যা কারনে, দাঁত আলগা হয়ে যাওয়ার কারনে।

যে কোন মানুষের যেকোন সময় এই সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে তাই জেনে নিন দাঁত ব্যথা দূর করার সহজ উপায়।আপনি যদি এই সমস্যায় ভুগেন কিংবা আপনার পরিবারের কোন সদস্য এই সমস্যায় ভুগে তাহলে ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন দাঁত ব্যথা।চলুন জেনে নেওয়া যাক দাঁত ব্যথা দূর করার উপায় সম্পর্কে।

দাঁত ব্যথা দূর করার উপায় – দাঁত ব্যথা দূর করার সহজ উপায়

১- পেঁয়াজ

আমরা সবাই জানি পেঁয়াজ তরকারি রাঁধতে কিংবা সালাদে ব্যবহার করা হয়।কিন্ত দাঁত ব্যথাতে পেঁয়াজ খুবি উপকারি।কারন পেঁয়াজে রয়েছে অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান যা দাঁতের জীবনু ধ্বংস করে এবং দাঁতের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।প্রথমে একটি পেঁয়াজকে ছোট ছোট টুকরো করুন এরপরে দাঁতের যে জায়গায় ব্যথা রয়েছে সে জায়গায় ছোট একটি টুকরো চিবোতে থাকুন।যদি পেঁয়াজের ঝাঁজের কারনে চিবোতে না পারেন তাহলে আক্রান্ত জায়গায় পেঁয়াজের ছোট এক টুকরো লাগিয়ে রাখুন দেখবেন আস্তে আস্তে ব্যথা কমে যাচ্ছে।

২- পেয়ারা পাতা

পেয়ারা কম বেশি সকলের পছন্দ কিন্তু আপনার যদি দাঁতের ব্যথা থাকে তাহলে আপনি পেয়ারা খাওয়ার কথা ভুলে যেতে হবে।যদি আপনি পেয়ারা পছন্দ করেন এবং খেতে চান তাহলে পেয়ারা পাতা ব্যবহার করে দাঁত মজবুত করে নিতে পারেন।দাঁত ব্যথায় উপকারী উপদানের মধ্যে পেয়ারা পাতাও একটি উপাদানের নাম।

আরো পড়ুনঃ শীতে দাঁতের যত্ন – দাঁতের সমস্যা সমাধানের উপায়

যদি আপনার দাঁত ব্যথা দেখা দেয় তাহলে ৩-৪ টা কচি পেয়ারা পাতা পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে চিবোতে থাকুন।যতক্ষন না আপনার ব্যথা কমতে থাকে ততক্ষন কচি পেয়ারা পাতা চিবাতে থাকলে ব্যথা সেরে যাবে খুব জলদি।তাছাড়া কচি পেয়ার পাতা দিয়ে পানি সেদ্ধ করে কুসুম কুসুম গরম পানি দিয়ে কুলকুঁচি করলে এই ব্যথার সমাধান পাবেন।

৩- রসুন

দাঁত ব্যথা দূর করার উপায় হিসেবে রসুন ব্যবহার করতে পারেন।প্রথমে এক কোয়া রসুন ভেঙ্গে নিন এরপর সেই রসুনের সাথে লবন লাগিয়ে দাঁতের গোঁড়ায় লাগিয়ে রাখুন।রসুনের এন্টিবায়োটিক উপাদান আপনার দাঁতের ব্যথা ধীরে ধীরে কমিয়ে দিবে।

৪- লবন পানি

নুনের যে গুন রয়েছে তা খাবার স্যালাইন প্রমাণ দিয়ে দেয়।কিন্ত এই লবন আপনার দাঁতের ব্যথায়ও বেশ উপকারি একটি উপাদান হিসেবে কাজ করবে।প্রথমে পরিমান মত পানি সিদ্ধ করে নিন এবার সিদ্ধ পানিতে ২-৩ চিমটি লবন দিয়ে দিন।তবে খেয়াল রাখবেন লবন যেন সহনীয় মাত্রায় থাকে।যাতে আপনি সিদ্ধ করা লবন পানি দিয়ে কুলকুঁচি করতে পারেন।

সিদ্ধ পানি চুলা থেকে নামিয়ে ঠান্ডাতে দিন।কুসুম কুসুম গরম থাকা অবস্থায় কুলকুঁচি করুন।এই লবন পানি আপনার দাঁতের টিস্যুগুলোকে জীবিত করে জীবানুর আক্রমন বন্ধ করে দেয়।যার ফলে আপনার দাঁতের ব্যাথা এবং শিরশিরভাব বন্ধ হয়ে যাবে।

আরো পড়ুনঃ দারুচিনির উপকারিতা – দারুচিনির ঔষধিগুণ

৫- মরিচ ও লবন

লবনের কথা শুনে ভয় না পেলেও অনেকেই মরিচের কথা শুনে ভয় পেয়েছেন নিশ্চয়.?কিন্তু স্পর্শকাতর এবং টনটনে ব্যথায় মরিচ আর লবন আপনাকে আরম প্রদান করতে পারে।প্রথমে একটি বাঁটি নিন এবার সেই বাঁটিতে সমপরিমাণ মরিচ আর লবন নিন পরিমান মত পানি দিয়ে লবন আর মরিচের পেস্ট তৈরি করুন।এবার আপনার তৈরিকৃত সেই পেস্ট যে জায়গায় ব্যথা রয়েছে সেই জায়গায় লাগিয়ে চুপচাপ বসে থাকুন দেখবেন আস্তে আস্তে ব্যথা কমে যাচ্ছে।এইভাবে কয়েকদিন লাগালে আস্তে আস্তে ব্যথা কমে যাবে।

আশা করি আমাদের দেওয়া দাঁত ব্যথা দূর করার উপায়  আপনার সমস্যার সমাধান নাও হতে পারে তাই জটিল ও কঠিন সমস্যার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এর পরামর্শ নেওয়াটা খুবি গুরুত্বপূর্ন।সুতরাং এইসব স্পর্শকাতর বিষয়ে আমাদের দেওয়া পরামর্শ কাজে না লাগলে ভাল কোন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

আমাদের লেখা যদি আপনার ভাল লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুর সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না।আর এই ধরনের আরো টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজ লাইক করতেও ভুলবেন না।

Check Also

খিদে লাগলেও খাবেন না

খিদে লাগলেও খাবেন না যেসব খাবার

খিদে লাগলেও খাবেন না যেসব খাবার – গোগ্রাসে খাওয়া এই শব্দটির সাথে অনেকেই পরিচিত। প্রচণ্ড …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *