Breaking News
Home / হেলথ টিপস / শীতে দাঁতের যত্ন – দাঁতের সমস্যা সমাধানের উপায়

শীতে দাঁতের যত্ন – দাঁতের সমস্যা সমাধানের উপায়

শীতে দাঁতের যত্ন – দাঁতের সমস্যা সমাধানের উপায় – শীতের দিন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে আমাদের মাঝে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়।তার জন্য শীতে ত্বকের যত্ন, শীতে চুলের যত্ন, শীতে দাঁতের যত্ন করার পাশাপাশি আমাদের সম্পূর্ন শরীরের দিকে নজর দেওয়া খুবি গুরুত্বপূর্ন।

শীতের দিনে মানুষের যে সমস্যাটি দেখা দেয় তা হলো দাঁতের সমস্যা আর এটি ছোট বড় সকলের হয়ে থাকে।কারন শীতে মাংসপেশিতে ব্যথার সাথে দাঁতের ব্যথার ঝুকি বেড়ে যায়।শীতের মৌসুমে আমরা গরম খাবার খেতে পছন্দ করি কিন্তু পানি পান করার সময় আমরা শীতল পানি পান করে থাকি যার ফলে দাঁতে ব্যথা হয়।সে কারনেই শীতে দাঁতের যত্ন নেওয়া খুবি জরুরি।

চলুন জেনে নেওয়া যায় শীতে দাঁতের যত্ন কিভাবে নিবেন সেই বিষয়ে।আমাদের লেখা আপনার ভালো লাগলে সেটি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন।

শীতে দাঁতের যত্ন – দাঁতের সমস্যা সমাধানের উপায়

শীতে আপনার দাঁতে কি সমস্যা হতে পারে –

ভারতের ডেন্টিস্ট ডাঃ শিবানী গুপ্তের মতে শীতে দাঁতে সংক্রমণের ঝুকি বেড়ে যায়।দাঁতে ব্যাকটিরিয়া সংক্রমণের কারনে পুঁজ ভর্তি হওয়ার সম্ভবনা থাকে।অতএব সঠিক যত্ন নেওতা না হলে দাঁত স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে।তিনি আরো বলেছেন আগে শিশুরা দাঁত পরিষ্কার না করার কারনে দাঁত ব্যথার সমস্যা শিশদের মাঝে বেশি দেখা দিতো কিন্তু এখন লাগামহীন খাবার দাবারের কারনে সব বয়সের মানুষের দাঁত ব্যথা সমস্যায় ভুগতে হয়।

আরো পড়ুনঃ শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায় – শীতে সুস্থ থাকার সহজ উপায়

দাঁতে কৃমি হলে কী হয় –

ডাঃ শিবানী বলেছিলেন যে দাঁতে কৃমির সমস্যা এবং দাঁতগুলির ক্রমশ বৃদ্ধি পাচনতন্ত্রকে আরও খারাপ করতে পারে, কারণ পাকস্থলীর অম্লতা হ্রাস হজমের কারণে তৈরি হয়। অম্লতা হ’ল পানির আকারে পেটে অ্যাসিড উপস্থিত করে। এটি দাঁতের উপরে ক্যালসিয়াম স্তরকে অ্যাসিডের সংস্পর্শে নিয়ে আসে। এই স্তরটি গলানো শুরু করে। এ কারণে দাঁত দুর্বল হয় এবং ঠান্ডা বা গরম খাবার ও পানীয়তে ব্যথা হয়।

কেন ঠান্ডা পানি সংবেদনশীলতা সৃষ্টি করে –

শীতকালে তাপমাত্রা কম থাকায় স্বাভাবিক পানিও খুব শীত অনুভব হয়।তাই শীতের দিনে দাঁতের সমস্যা এড়াতে হালকা গরম জল পান করুন এবং বেশি গরম খাবার এবং পানি পান করা থেকে বিরত থাকুন।দাঁতের ব্রাশ শক্ত হলে সেটা পরিবর্তন করে নরম ব্রাশ ব্যবহারের চেষ্টা করুন এবং দিনে কমপক্ষে দু’বার ব্রাশ করুন।

এই জিনিসগুলিরও বিশেষ যত্ন নিন –

দাঁতের ক্ষতি করে এমন খাবার খাওয়া এবং পান করা থেকে বিরত থাকুন।চা-কফি এবং মাদকদ্রব্য দাঁতের জন্য খুব ক্ষতিকর সুতরাং এইসব খাওয়া এবং পান করা থেকে নিজেকে বিরত রাখুন।শীতে দাঁতের যত্ন নেওয়া খুবি গুরুত্বপূর্ন তাই অবহেলা না করে দাঁতের যত্ন নিন।দাঁত খুবি অমূল্য সম্পদ যা হারানোর পর বুঝা যায় কতটা অমূল্য।আর যাদের দাঁতের ব্যথা রয়েছে একমাত্র তারাই বুঝতে পারে দাঁতের যত্ন নেওয়া কতটা জরুরী।

Check Also

চিনির উপকারিতা অপকারিতা

চিনির উপকারিতা অপকারিতা – প্রতিদিন কতটুকু চিনি খাবেন?

চিনির উপকারিতা অপকারিতা – মাত্রাতিরিক্ত চিনি খাওয়া যে শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক, সেই সচেতনতা আজকাল অনেকের …