Breaking News
Home / হেলথ টিপস / শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায় – শীতে সুস্থ থাকার সহজ উপায়

শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায় – শীতে সুস্থ থাকার সহজ উপায়

শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায় – শীতের মৌসুম যতই ঘনিয়ে আসছে সবাই একটা কথা বলতে শুনা যায় এইবার শীত বাড়বে।শীতের মৌসুমে শীত কম হোক বা বেশি আপনার স্বাস্থ্য ভালো থাকাটা গুরুত্বপূর্ন।সুতরাং শীতের অভিযোগ না করে কিভাবে শীতে দিনে সুস্থ থাকতে নিজেকে প্রস্তুত করবেন সেই দিকে নজর দিন।যদি আপনি শীতের দিনে ঠান্ডা এড়ানোর পদ্ধতিগুলি প্রয়োগ করতে শুরু করবেন তখন শীত আপনার থেকে পালাতে শুরু করবে।

বর্তমানে মানুষ নানাভাবে ডায়েট (খাওয়া-দাওয়া) এতটাই কৃত্রিম হয়ে উঠেছে যে সামন্যতম ঋতু পরিবর্তনের ফলেও শরীর রোগ প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয় না।সামগ্রিকভাবে মানুষের মানসিক ও শারীরিক সহনশীলতা দিন দিন হ্রাস পেয়েছে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে।আমাদের লেখা যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে সোস্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে অন্যদের জানাতে ভুলবেন না।

শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায়

১- পর্যাপ্ত জল পান করা

গরমের দিনের তুলনায় শীতের দিনে আমাদের তৃষ্ণা খুবি কম পায়।যার ফলে অনেকেই শীতের দিনে জল পান করা কমিয়ে ফেলে।কিন্তু জল কম পান করাতে আমাদের শরীরে পানিসূন্যতার ঝুকি বেড়ে যায়।সুতরাং শীতের দিনে জলের গুরুত্বকে অবমূল্যায়ন করা একেবারে ঠিক নয়।যদি আপনার তৃষ্ণা না পায় কিংবা আপনার পানি পান করতে মন না চায় তাহলে দিনে নির্দিষ্ট কিছু সময় পর পর পানি পান করুন।এতে আপনার শরীরে পানিশূন্যতার ঝুকি থেকে রক্ষা পাবেন।

আরো পড়ুনঃ যে পাঁচটি খাবার করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে পারে।

২- অলসতা ত্যাগ করুন

তথ্য প্রযুক্তি দিন দিন যতই উন্নত হচ্ছে মানব সমাজ ততই অলস হয়ে যাচ্ছে।আপনার হাতে যদি স্মার্টফোন থাকে সাথে ইন্টারনেট তাহলে আপনি রাতের ঘুম হারাম করছেন কিংবা করে থাকেন।অর্থাৎ আপনি যত দেরীতে ঘুমাতে যাচ্ছেন ঠিক ততটা দেরীতেই ঘুম থেকে উঠছেন।অনেকেই ৩-৪ ঘন্টা ঘুমানোর পর উঠে পড়েন।আপনি কি জানেন পর্যাপ্ত ঘুম আপনার শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।সুতরাং দেরীতে ঘুমাতে গিয়ে দেরীতে ঘুম থেকে উঠা মানে সকালের নাস্তাটাও দেরীতে করা।পর্যাপ্ত ঘুম আর সঠিক সময়ে খাবার না খাওয়া মানে আপনি নিজেই আপনাকে স্বাস্থঝুকিতে ফেলে দিচ্ছন।সুতরাং সময় মতো ঘুম আর খাবার গ্রহন করুন আর সুস্থ থাকুন।

৩- শরীরে তেল লাগানো

শরীরে তেল লাগানোটা অনেকের পছন্দ না কিন্তু শীতের দিনে গোসলের পরে সরিষা কিংবা নারকেল তেল শরীরে লাগান তাহলে শীতের ঠান্ডা বাতাস হতে আপনাকে রক্ষা করবে।এক কথায় বলা যায় সরিষা বা নারকেল তেল শীতের দিনে আপনার জন্য চাদরের কাজ করে।সুতরাং শরীরে তেল মাখার অভ্যাস যাদের নেই এই শীতে সেটাকে অভ্যাসে পরিনত করুন।

৪- চলাচলের রাস্তা শুকনো রাখা

শীতের দিনে মেঝের এবং রান্নাঘরের পানির শুকানোটা বেশ অসুবিধাজনক।তাই মেঝের এবং রান্নাঘরের পানি শুকানোর জন্য শুকনো কাপড় দিয়ে বার বার মুছতে থাকুন।মেজে যদি পানি জমে থাকে তাহলে আপনার পা ঠান্ডা হতে থাকবে আর পা ঠান্ডা হলে আপনার সর্দি বা কাশি হওয়ার সম্ভবনা বেড়ে যায়।সুতরাং যতটুকু সম্ভব চলাচলের জায়গাগুলো শুকনো রাখুন।

৫- আগুন পোহানো থেকে দূরে থাকুন

শীতের দিনে শীতল হওয়ার জন্য অনেকে আগুন জ্বালিয়ে আগুন পোহানর কাজ করে থাকেন।কিন্তু এটি আপনার ত্বক, চুল এবং পরিবেশের জন্য ক্ষতিকারক।অনেকেই আগুন জ্বালানোর জন্য পলিথিন, কাপড় সহ নানা রকম জিনিস পুড়িয়ে থাকে যা শ্বাসকষ্টজনিত রোগ হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করে থাকে।সুতরাং আগুন পোহানোর নামে নিজের ত্বক, চুল, পরিবেশ নষ্ট না করে শীতের কাপড় পড়ুন।

শীতে সুস্থ থাকার ঘরোয়া উপায় কিংবা শীতে সুস্থ থাকার সহজ উপায় আপনার কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

Check Also

খিদে লাগলেও খাবেন না

খিদে লাগলেও খাবেন না যেসব খাবার

খিদে লাগলেও খাবেন না যেসব খাবার – গোগ্রাসে খাওয়া এই শব্দটির সাথে অনেকেই পরিচিত। প্রচণ্ড …

Leave a Reply

Your email address will not be published.